বীমা এজেন্ট নিয়োগ ও নিবন্ধন গেজেট প্রকাশ

  • 0

রোববার (১৪ নভেম্বর ২০২১) এটি গেজেট আকারে প্রকাশের পর  বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। একইসঙ্গে বীমা কোম্পানিগুলোর ই-মেইলে গেজেটের কপি পাঠানো হয়েছে।

বীমা এজেন্ট নিয়োগ ও নিবন্ধন গেজেট

নতুন এই প্রবিধানমালায় স্থায়ী ও অস্থায়ী ভিত্তিতে বীমা এজেন্ট নিয়োগের বিধান করা হয়েছে। এজেন্ট লাইসেন্সের মেয়াদ নির্ধারণ করা হয়েছে ৩ বছর। আর মেয়াদের শেষ তিরিশ দিনের মধ্যে বিধি অনুসারে লাইসেন্স নবায়নের জন্য আবেদন করতে বলা হয়েছে। তবে ছাড়পত্র ছাড়া নিয়োগ পাবেন না অপর কোন কোম্পানিতে।

অস্থায়ী নিয়োগের ক্ষেত্রে আবেদনকারীর বয়স নূন্যতম ১৮ বছর হতে হবে। শিক্ষাগত যোগ্যতা চাওয়া হয়েছে, কোনো স্বীকৃত বোর্ডের অধীন মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ। তবে আবেদনকারীকে প্রবিধান ১১ এর অধীন অযোগ্য হওয়া যাবে না।

এ ছাড়াও অব্যাহতি প্রাপ্ত এজেন্টের ক্ষেত্রে বীমাকারী বা ব্রোকারের নিকট থেকে প্রাপ্ত ছাড়পত্র এবং লেনদেন নিষ্পত্তির প্রত্যয়নপত্রের সত্যায়িত কপি সংযুক্ত করতে হবে। একইসঙ্গে কর্তৃপক্ষ থেকে ইস্যুকৃত লাইসেন্সের কপিও দাখিল করতে হবে।

স্থায়ী এজেন্ট হিসেবে লাইসেন্স পেতে আবেদনকারীকে অস্থায়ী নিয়োগের ১ বছর সময় শেষ হওয়ার ৩০ দিন পূর্বে বীমাকারীর মাধ্যমে কর্তৃপক্ষের নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হবে। শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদসহ বাধ্যতামূলক ৭২ ঘণ্টা প্রশিক্ষণ গ্রহণের সনদ সঙ্গে দিতে হবে। প্রবিধান ১১ এর অধীন অযোগ্য হওয়া যাবে না।

এ ছাড়াও লাইফ বীমার ক্ষেত্রে আবেদনকারীকে ১ বছরে কমপক্ষে ১১টি নতুন পলিসি সংগ্রহ করতে হবে। নতুন প্রিমিয়াম সংগ্রহের বিপরীতে ২০ হাজার টাকা কমিশন আয় করতে হবে। এক্ষেত্রে বীমাকারীকে কমিশনের ওপর উৎস স্থলে কর কর্তনের সনদ দাখিল করতে হবে।

নন-লাইফের এজেন্ট হিসেবে লাইসেন্স পেতে শিক্ষাগত যোগ্যতা ও প্রশিক্ষণ গ্রহণের সনদ দাখিলের পাশাপাশি অস্থায়ী এজেন্ট হিসেবে কর্মকালীন এক লাখ টাকার প্রিমিয়াম সংগ্রহ করেছেন মর্মে সংশ্লিষ্ট বীমাকারী কর্তৃক প্রদত্ত প্রতয়নপত্র জমা দিতে হবে। এক্ষেত্রে বীমাকারী বা ব্রোকার কর্তৃক উক্ত সংগৃহীত প্রিমিয়ামের ওপর প্রদত্ত কমিশনের ওপর উৎস স্থলে কর কর্তনের সনদপত্র দাখিল করতে হবে।

মেয়াদ শেষ হওয়ার ৩০ দিন আগেই লাইসেন্স নবায়নের আবেদন করতে হবে। এক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক ৩৬ ঘণ্টা প্রশিক্ষণ গ্রহণের সনদ থাকতে হবে। লাইফ বীমার এজেন্ট লাইসেন্স নবায়নের ক্ষেত্রে ১ম বর্ষ প্রিমিয়ামের বিপরীতে দ্বিতীয় বর্ষের নবায়ন প্রিমিয়াম সংরক্ষণের হার নূন্যতম ৫০ শতাংশ থাকতে হবে। তবে প্রবিধান ১১ এর অধীন অযোগ্য হওয়া চলবে না।

প্রবিধি ৯ এ বীমা এজেন্ট হিসেবে লাইসেন্স ইস্যু ও নবায়নে পরিশোধযোগ্য ফি উল্লেখ করা হয়েছে। এতে বীমা এজেন্টের লাইসেন্সের জন্য ১ হাজার ৫শ’ টাকা, লাইসেন্স নবায়নে ১ হাজার টাকা, প্রত্যেক ৩ মাসের মধ্যে বিলম্বের জন্য ১শ’ টাকা ও তদুর্ধ্ব মাসের জন্য ৬শ’ টাকা এবং প্রতিলিপি লাইসেন্সের জন্য ১শ’ টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। এসব ফি কর্তৃপক্ষ ফান্ড এর অনুকূলে ব্যাংক ড্রাফট বা পে অর্ডার বা অনলাইন পেমেন্টের মাধ্যমে জমা দিতে হবে।

তবে অপ্রাপ্ত বয়স্ক, অপ্রকৃতিস্থ, আদালতে দোষী সাব্যস্ত, বীমা পলিসি সংক্রান্ত কোন বিচারিক প্রক্রিয়ায় বা বীমা কোম্পানির অবসায়নে বা কোন কার্যের তদন্তকালে দোষী হলে, বীমাকারী বা বীমা গ্রহীতার স্বার্থের পরিপন্থী কর্মকাণ্ডের জন্য দোষী সাব্যস্ত এবং এই প্রবিধানে বর্ণিত আচরণবিধির লঙ্ঘনকারী বীমা এজেন্ট হতে পারবেন না।

এছাড়াও কোন লাইফ ও নন-লাইফ বীমা কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদের সদস্য, কর্মকর্তা বা কর্মচারী; অন্যকোন বীমাকারী বা ব্রোকারের অধীনে কাজে নিয়োজিত থাকা অবস্থায়, বহিস্কৃত বা বাতিকলকৃত বীমা এজেন্টের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত এবং একই বীমা শ্রেণীর এজেন্ট না হলে তিনি বীমা এজেন্ট হতে পারবেন না বা তার লাইসেন্স নবায়ন করা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *